My Blog My World

Collection of Online Publications

ভূমিকম্পে নগ্ন হলো হাইতির সঙ্কট

নিবন্ধটি ১৫ জানুয়ারি দৈনিক কালের কণ্ঠে প্রকাশিত হয়েছে।

ভাষান্তর করেছেন: মেহেদী হাসান

মূল নিবন্ধ: ড্যানিয়েল পি এরিকসন

এ সপ্তাহের ভয়াবহ ভূমিকম্প নিরবে থাকা হাইতির জনগণের দারিদ্র্য আর বেপরোয়া মনোভাবের চিত্র বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরেছে। ইতিমধ্যে এ সঙ্কটের জালে আটকা পড়েছেন দেশটির মোট জনসংখ্যার একটি বড় অংশ। বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী দেশ যুক্তরাষ্ট্রের দ্বারপ্রান্তেই এমন একটি ব্যর্থরাষ্ট্রের অবস্থান। যুক্তরাষ্ট্রের জটিল এবং সুদূরপ্রসারী পররাষ্ট্রনীতির মোকাবিলা করতে হচ্ছে হাইতিকে। দেশটি যেকোনো বিচারে বর্তমান বিশ্বে বসবাসের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক স্থান। এর সামাজিক সূচকগুলো আফ্রিকার যুদ্ধবিদ্ধস্ত দেশগুলোর কাছেও হার মানে। ২০ বছর আগে ১৯৯০ সালে হাইতির প্রথম গণতান্ত্রিক নির্বাচন দেশটিতে ইতিবাচক পরিবর্তন আনার আশা জাগিয়েছিল। তবে একের পর এক রাজনৈতিক সংঘাত, নিরাপত্তাহীনতা এবং রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যর্থতা যেন দেশটিতে মহামারি অবস্থার সৃষ্টি করেছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধি, বন উজাড় হওয়ার মাধ্যমে চাষাবাদের উপযোগিতা হারানো এবং ক্রমবর্ধমান খাদ্যসঙ্কট_এই তিনটি সমস্যা হাইতির জন্য বেশ পুরনো। সাম্প্রতিক ভূমিকম্প দেশটির পুরনো সমস্যাকে আরো কয়েকগুণ বাড়িয়ে তুলেছে। আধুনিক জ্বালানি, যেমন বিদ্যুৎ বা প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহারের সুযোগ না থাকায় হাইতির প্রায় তিন-চতুর্থাংশ জনগণ তাদের রান্নার জন্য জ্বালানির প্রাথমিক উৎস হিসেবে কাঠকয়লার উপর নির্ভরশীল। এ কারণে ১৯৯০-এর দশক থেকে বছরে গড়ে দেশের বনভূমি থেকে দেড় থেকে দুই কোটি গাছ কমতে থাকে। ঔপনিবেশিক যুগে হাইতিতে বনভূমির পরিমাণ ছিল মোট ভূখণ্ডের ৭৫ শতাংশ। বর্তমানে এ হার এক শতাংশেরও কম। দেশের অনেক এলাকার অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, সেগুলোকে পুনরায় বাসযোগ্য করে তোলা অসম্ভব। এ কারণে পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের অনেকে এই দেশকে ‘ক্যারিবীয় মরুভূমি’ বলে আখ্যায়িত করতে শুরু করেছেন। বনভূমি উজাড় হওয়ার ফলে চাষযোগ্য জমির উপরিভাগে ব্যাপক ক্ষয় হয়েছে, বিরূপ প্রভাব পড়েছে জীববৈচিত্র্যে। জাতিসংঘের এক হিসাবে দেখা যায়, প্রতিবছর বৃষ্টি এবং বন্যায় হাইতির তিন কোটি ৬০ লাখ টন উর্বর মাটি ক্ষয় হয়ে ক্যারিবীয় সাগরে গিয়ে পড়ে। এতে ক্ষতি হচ্ছে হাইতির জলজ ও মৎস্যসম্পদের। অর্থাৎ প্রাকৃতিক খাদ্য উৎপাদন কমছে। এদিকে হাইতির জনসংখ্যা ব্যাপক হারে বাড়ছে। ১৯৮৬ সালে ডুয়াভেলিয়ার সাম্রাজ্যের অবসানের পর থেকে হাইতির জনসংখ্যা ৩০ লাখ বেড়ে এ বছর ৯০ লাখে উন্নীত হয়েছে। আগামী ২৫ বছরে দেশের জনসংখ্যায় আরো ৩০ লাখ জন যোগ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০৩০ সালের মধ্যে হাইতি জনসংখ্যায় কিউবা এবং ডমিনিক প্রজাতন্ত্রকে ছাড়িয়ে ক্যারিবীয় অঞ্চলের সবচেয়ে জনবহুল দেশে পরিণত হবে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি সম্পদের পরিমাণ কমতে থাকায় খাদ্যঘাটতি বেশ প্রকট হয়ে উঠছে। ২০০৩ সালের গ্রীষ্মে রোমভিত্তিক বিশ্ব খাদ্য সংস্থা (ফাও) হাইতিকে ‘নীরব সঙ্কট’ হিসেবে আখ্যায়িত করে। সেসময়ই দেশটির ৩৮ লাখ লোকের নূ্যনতম খাবারের নিশ্চয়তা ছিল না। দারিদ্র্য আর খাদ্যঘাটতির সবচেয়ে বড় প্রভাব ছিল পল্লী অঞ্চলে। ২০০৩ সালে হাইতিতে চরম অপুষ্টির শিকার মানুষের হার ছিল মোট জনসংখ্যার সাড়ে চার শতাংশ, যা পরবর্তীতে আরো বেড়েছে। ব্যাপক হারে বৃক্ষনিধন এবং খাদ্যঘাটতি যখন বাড়ছিল, তখন হাইতির জনগণ প্রায়ই নিজেদের মধ্যে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে। যুক্তরাষ্ট্র হাইতির সব সঙ্কট সমাধান করতে পারবে না। বরং এই দেশটির জন্য প্রয়োজন এমন কিছু উদ্যোগ, যা গণতন্ত্র ও কার্যকর আইন ও বিচারব্যবস্থা এবং সরকার প্রতিষ্ঠায় কিছুটা হলেও ভূমিকা রাখবে। দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো, যুক্তরাষ্ট্র অতীতে হাইতির সঙ্কট নিরসনে দেশটির সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করলেও হাইতি এ থেকে তেমন কোনো সুবিধা অর্জন করতে পারেনি। বুশ এবং ক্লিনটন প্রশাসনের পর হাইতির ব্যাপারে দ্বিধান্বিত মার্কিন নীতি হতাশাজনক ফল বয়ে এনেছে। হাইতি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের আংশিক সৈন্য প্রত্যাহারের পর দেশটিতে সঙ্কট আরো তীব্র হয়েছে। রিখটার স্কেলে সাত মাত্রার ভূ-কম্পন হাইতিতে দীর্ঘদিন ধরে পুঞ্জীভূত সমস্যার প্রকাশ ঘটিয়েছে। উদ্ধার, ত্রাণ কার্যক্রম এবং ভূমিকম্প-সঙ্কট উত্তরণের পরও হাইতিতে স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা ওবামা প্রশাসনের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। লেখক: ওয়াশিংটনের ইন্টার-আমেরিকান ডায়ালগে ক্যারিবীয় কর্মসূচির পরিচালক এবং মার্কিন নীতির সিনিয়র অ্যাসোসিয়েট এওএলস্পেয়ারডটকম থেকে ভাষান্তর: মেহেদী হাসান

Advertisements

January 15, 2010 - Posted by | International |

No comments yet.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: