My Blog My World

Collection of Online Publications

এও কি সম্ভব?

এবার আর সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বিদেশে পালানো নয়, খোদ কাঠগড়া থেকে পালালো সাংবাদিক গৌতম হত্যা মামলার আসামী। এ ঘটনার পেছনে দৈব কিছু ছিল না। আদালতে বিচার কাজ চলছিল। কাঠগড়ায় ছিল আসামীরা। এদের মধ্যে একজনের জামিন আবেদন করা হলেও তা নাকচ হয়ে যায়। এরপরতো তার কারাগারেই যাওয়ার কথা। কিন্তু তা হলো না। পুলিশের চোখে ধুলা ছিটিয়ে নয়, বরং অন্য আসামীদের সঙ্গে কাঠগড়া থেকে নেমে হেঁটে আদালতের সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে গেলে সেই আসামী। আদালতে দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ তা টেরই পেলো না। এটাই কি আমাদের পুলিশের কর্মদতার বহি:প্রকাশ? যেদিন এ ঘটনা ঘটলো সেদিন সকালেই পত্রিকাগুলোতে লাল রঙের শিরোনাম ছিল- এসআই গৌতম খুন। এসআই গৌতম অন্য এব ব্যক্তি। আমরাই তার পে সাফাই গেয়ে লিখেছি তিনি ছিলেন একজন তরুণ, চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা। আরও একটি বিশেষণ অনেকের নজর কেড়েছে- তিনি ছিলেন স্বচ্ছল। এসআই গৌতম একসময় সাংবাদিকতা করতেন। ফরিদপুরের গৌতম দাসও ছিলেন সাংবাদিক। প্রথম সারির বাংলা দৈনিক পত্রিকা সমকালের ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান। কীভাবে, কী কারণে তাঁকে হত্যা করা হয়েছিল তার অনুসন্ধান করা আজ আমার এ লেখার উদ্দেশ্য নয়। যতদূর মনে পড়ছে, বিভিন্ন সময় শুনেছি গৌতম হত্যার বিচার পক্রিয়া স্বাভাবিক গতিতে এগিয়ে চলে নি। অথবা যে গতিতে তা চলার কথা ছিল বা প্রত্যাশা ছিল তার নিদর্শন পাওয়া যায়নি। এরপরও তা চলেছে এবং চলছে। আজ হঠাৎ পুলিশের সামনে থেকে আসামির চলে যাওয়া দেখে মনে পড়লো অতীতে বিভিন্ন সময় পুলিশ হেফাজত বা হাসপাতাল থেকে চিকিৎসাধীন বন্দির পালিয়ে যাওয়ার খবর। এসব ঘটনায় আমরা যদি ঢালাওভাবে পুলিশকে দায়ী না করি তবুও বলতে হবে পুলিশের যোগসাজশ ছাড়া নিরাপত্তা হেফাজত থেকে আসামী পালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। পুলিশের প্রতি আরও সহমর্মী হলে বলতে হবে, দায়িত্বে অবহেলা না করলে এ ধরনের ঘটনা এড়ানো সম্ভব। তাই ফরিদপুরের সাংবাদিক গৌতম হত্যা মামলার আসামী কাঠগড়া থেকে চলে যাওয়াকে কে কোন চোখে দেখবো আমরা? আমাদেরকে কি বিশ্বাস করতে হবে যে, ঐ আসামীর সঙ্গে পুলিশের যোগসাজশ ছিল। নাকি এটি দায়িত্বে চরম অবহেলার ফল। কেননা ঐ আসামী পালিয়ে যায় নি, নিরাপদে প্রস্থান করেছে। পুলিশ যদি এ ধরনের দায়িত্বে অবহেলা অব্যাহত রাখে তবে এর চেয়ে আরও অনেক কঠিন মূল্য দিতে হতে পারে আমাদের। কিন্তু পুলিশের ঘুম ভাঙাবে কে?

Advertisements

April 22, 2010 - Posted by | Analysis, Media | ,

No comments yet.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: